protichinta

ইসলামি রাষ্ট্রের পতন ও উত্থান

আইরিন খান

দ্য ফল অ্যান্ড রাইজ অব দ্য ইসলামিক স্টেট—নোআহ ফেল্ডম্যান, প্রিন্সটন: প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটি প্রেস, ২০০৮।

পটভূমি

৯/১১ ও ২০১১-পরবর্তী পশ্চিম এশিয়ার মুসলিম অধ্যুষিত বিভিন্ন দেশে শাসনব্যবস্থায় পরিবর্তন এসেছে। সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের পর বিশ্বজুড়ে রাজনৈতিক মতবাদ হিসেবে গণতন্ত্রের প্রসার ঘটলেও মানচিত্রের এই অংশ দীর্ঘদিন ধরে ছিল স্বৈরশাসনের অধীন। ২০১১-পরবর্তী বিভিন্ন দেশে স্বৈরশাসনের পতনের পর নতুন শাসনব্যবস্থা কী হবে তা নিয়ে বিশ্বজুড়ে রয়েছে নানা মতবাদ। আফগানিস্তান ও ইরাকে গণতন্ত্র ব্যর্থ হওয়ায় পশ্চিমা শক্তিরা বুঝতে পেরেছে যে এই ভূখণ্ডে উদারবাদী গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সময় এখন নয়। উপরন্তু এই দেশগুলোর জনগণের মধ্যে ইসলামি রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি সমর্থন রয়েছে। এমতাবস্থায় এই দেশগুলোতে নতুন এক মতবাদের প্রবর্তন দেখা যাচ্ছে, যা গণতন্ত্র ও ইসলামবাদের একটি মিশ্রণ। এই মতবাদকে বলা হচ্ছে ‘ইসলামবাদ’ বা ‘রাজনৈতিক ইসলাম’। বর্তমানে বিভিন্ন মুসলিম রাষ্ট্রে ইসলামি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার আহ্বান মূলত এই ‘ইসলামবাদ’ মতবাদের আলোকে। নোআহ ফেল্ডম্যান দ্য ফল অ্যান্ড রাইজ অব দ্য ইসলামিক স্টেট বইটিতে মূলত এই মতবাদের প্রতি সমর্থন রেখে আলোচনা করেছেন। ফেল্ডম্যান মনে করেন, ইসলাম ও গণতন্ত্র সংগতিপূর্ণ। শরিয়তের গণতন্ত্রায়ণ ও সাংবিধানিকীকরণ করে যথার্থ প্রতিষ্ঠানিকীকরণের মাধ্যমে ইসলামি রাষ্ট্র কার্যকর করা সম্ভব। লেখক বইটিতে বিভিন্ন যুক্তি ও ব্যাখ্যার মাধ্যমে বলেছেন কীভাবে এই নতুন ইসলামি রাষ্ট্র সফলতা লাভ করতে পারে।

pathok

যোগাযোগের ঠিকানা

সিএ ভবন,
১০০ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,
কারওয়ান বাজার, ঢাকা - ১২১৫।

ফোন: ৮৮০-২-৮১১০০৮১, ৮১১৫৩০৭
ফ্যাক্স - ৮৮০-২-৯১৩০৪৯৬

protichinta kinte chile