protichinta

লেখক পরিচিতি

নুরুল ইসলাম

শীর্ষস্থানীয় অর্থনীতিবিদ। বাংলাদেশের পরিকল্পনা কমিশনের সাবেক ডেপুটি চেয়ারম্যান (১৯৭২-৭৫)। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক। পাকিস্তান ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট ইকোনমিকসের (পরে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট স্টাডিস) পরিচালক হিসেবে সুদীর্ঘকাল দায়িত্ব পালন করেছেন। ইন্টারন্যাশনাল ফুড পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের ইমেরিটাস ফেলো। উল্লেখযোগ্য প্রকাশনা: মেকিং অব নেশন: বাংলাদেশ: অ্যান ইকোনমিস্ট’স টেল (ইউপিএল, ২০০৩); এক্সপ্লোরেশন ইন ডেভেলপমেন্ট ইস্যুজ: সিলেক্টেড আর্টিকেলস অব নুরুল ইসলাম (অ্যাশগেট, ২০০৩); ডেভেলপমেন্ট প্ল্যানিং ইন বাংলাদেশ: এ স্টাডি ইন পলিটিক্যাল ইকোনমি (ইউপিএল, ১৯৭৯); ডেভেলপমেন্ট স্ট্র্যাটেজি অব বাংলাদেশ (পারগ্যামন, ১৯৭৮)।

আবু মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন

অধ্যাপক আবু মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের  ইতিহাস বিভাগ থেকে স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রি লাভ করেন। একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৮৩ সালে স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণিতে দ্বিতীয় স্থান লাভ করেন। ২০০২ সালে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৯০ সাল থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করছেন। বর্তমানে ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক, শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের প্রভোস্ট এবং ভাষাশহীদ আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর ও সংগ্রহশালার পরিচালক। তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা ৩০। উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ: মুক্তিযুদ্ধ গ্রন্থপঞ্জি; বাংলাদেশের রাজনীতিতে ধর্ম ও ধর্মনিরপেক্ষতা; মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসচর্চা; বাংলাদেশের ইতিহাস ১৯০৫-১৯৭১; আফ্রিকার ইতিহাস; বঙ্গবন্ধুর গ্রন্থপঞ্জি; বঙ্গবন্ধুর মানবাধিকার দর্শন ইত্যাদি। দেশ-বিদেশের বিভিন্ন জার্নালে লেখকের ৫০টি গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে।

সারাহ গ্লিন

সারাহ গ্লিন একজন শিক্ষক এবং স্থপতি। তিনি এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের হিউম্যান জিওগ্রাফি বিভাগের অধ্যাপক, সেন্ট এন্ড্রুতে ভূগোলবিদ্যার শিক্ষক সহকর্মী এবং সেন্ট এন্ড্রুস সেন্টার ফর হাউজিং রিসার্চের সহযোগী সদস্য। তিনি অক্সফোর্ড পলিটেকনিক এবং কেমব্রিজ ট্রিনিটি কলেজ থেকে স্থাপত্যবিদ্যায় পড়াশোনা করেন এবং একাডেমিয়ায় আসার আগে তেরো বছর স্থপতি হিসেবে কাজ করেন। লন্ডনের পূর্বাঞ্চলে অভিবাসীদের রাজনৈতিক গতিশীলতা নিয়ে লন্ডন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তাঁর উল্লেখযোগ্য প্রকাশনার মধ্যে রয়েছে “Safe as houses”, Scottish Left Review, 42, 2007; “East End Immigrants and the Battle for Housing: a comparative study of political mobilisation in the Jewish and Bengali communities”, Journal of Historical Geography, 31 pp 528-545,2005; “Bengali Muslims: the new East End radicals?” Ethnic and Racial Studies, 25:6 pp 969-988, 2002 ইত্যাদি।

আশফাক হোসেন

আশফাক হোসেনের জন্ম ৩১ ডিসেম্বর ১৯৬৯, মৌলভীবাজার জেলা শহরে। সদর উপজেলার সাধুহাটি হলো তাঁর গ্রামের বাড়ি। স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে পড়াশোনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব নটিংহামে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে এমএ ও এমফিল। এমফিল পর্যায়ে গবেষণার বিষয় বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ। এ পর্যন্ত প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা ছয়; গবেষণা প্রবন্ধের সংখ্যা পঁচিশের বেশি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. আশফাক হোসেন অনন্য সাধারণ গবেষণার জন্য ২০১২-১৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিচারপতি ইব্রাহিম স্মারক স্বর্ণপদক অর্জন করেন । তিনি ২০১৩ সালে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন কর্তৃক মানবিক-সমাজবিজ্ঞান-বাণিজ্য সম্মিলিত শাখায় বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ গবেষক হিসেবে নির্বাচিত হন।

পাপড়ীন নাহার

পাপড়ীন নাহার নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চিকিত্সাবিদ্যাবিষয়ক নৃবিজ্ঞানে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন। ১৯৯৪-২০০৭ পর্যন্ত আইসিডিডিআরবিতে গবেষক হিসেবে কাজ করেছেন। পরবর্তী সময়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে উইমেন অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কাজ করেন। তারপর ইনডিপেনডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে লিবারেল আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্স স্কুলে কাজ করেন। উন্নয়নশীল দেশ ও প্রবাসীদের স্বাস্থ্যের সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক দিক তাঁর আগ্রহের গবেষণা বিষয়। তাঁর উল্লেখযোগ্য প্রকাশনার মধ্যে রয়েছে Translated by Papreen Nahar & Original by Sonia Nishat Amin (2003). The World of Muslim Women in Colonial Bengal, 1876-1939 (Translated from English to Bengali). Bangla Academy Publishers,  Dhaka.

মার্টিন ভ্যান রিওয়্যাক

মার্টিন ইম্পেরিয়াল কলেজের পুরকৌশল ও পরিবেশ প্রকৌশল অনুষদের ফ্লুইড মেকানিকস বিভাগের জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক। তিনি ফ্লুইড মেকানিকস এ ডেল্ফট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএসসি এবং পিএইচডি করেছেন।

রিয়া রিইস

রিয়া রিইস আমস্টারডাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক নৃবিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এবং আমস্টারডাম ইনস্টিটিউট ফর সোশ্যাল সায়েন্স রিসার্চ-এর হেলথ কেয়ার অ্যান্ড বডি রিসার্চ প্রোগ্রামের যুগ্ম পরিচালক। তিনি লেইডেন বিশ্ববিদ্যালয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রের স্বাস্থ্য নৃবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক। পনেরো বছর ধরে তিনি শিশু ও কিশোরীদের স্বাস্থ্যের ঝুঁকি, দ্বন্দ্ব, অসমতা, কৌশল ও কল্যাণে কাজ করছেন।

মিজানুর রহমান খান

সাংবাদিক, আইন বিশেষজ্ঞ। প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক। উল্লেখযোগ্য প্রকাশনা: তত্ত্বাবধায়ক সরকার: এর অশনিসংকেত (আগামী, ২০০৯); সংবিধান ও তত্ত্বাবধায়ক সরকার বিতর্ক (সিটি প্রকাশনী, ১৯৯৫); মার্কিন দলিলে মুজিব হত্যাকাণ্ড (প্রথমা, ২০১৩)।

রেজাউল হক

গবেষক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর। ফরাসি ভাষার শিক্ষক ও সাংবাদিক ছিলেন। গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন এনজিওর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

 

 

pathok

যোগাযোগের ঠিকানা

সিএ ভবন,
১০০ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,
কারওয়ান বাজার, ঢাকা - ১২১৫।

ফোন: ৮৮০-২-৮১১০০৮১, ৮১১৫৩০৭
ফ্যাক্স - ৮৮০-২-৯১৩০৪৯৬

protichinta kinte chile