protichinta

ছয় দফা ও দুই অর্থনীতি

নুরুল ইসলাম

দুই অর্থনীতির তত্ত্বের মধ্য দিয়ে পূর্ব পাকিস্তানের অর্থনীতিবিদদের মধ্যে চিন্তার সূত্রপাত হয়, কীভাবে সে অঞ্চলের অর্থনৈতিক অধিকার রক্ষা করা যায় এবং অর্থনীতির শ্লথ প্রবৃদ্ধির চাকা উল্টো দিকে ঘুরিয়ে দেওয়া যায়। এই নিম্ন প্রবৃদ্ধির কারণে পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের মধ্যকার বৈষম্য বৃদ্ধি পায়। পাকিস্তানের আর্থনীতিক কৌশল প্রণয়নের ক্ষেত্রে সবচেয়ে যথাযথ এবং গুরুত্বপূর্ণ বিশ্লেষণী ও ধারণাগত কাঠামো হিসেবে এই তত্ত্ব পেশ করা হয়েছিল।

একই সঙ্গে, রাজনৈতিক নেতারা রাজনৈতিক অধিকারের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছিলেন, যার পরিণতিতে ১৯৫৪ সালে পূর্ব পাকিস্তানে মুসলিম লীগের কার্যত মৃত্যু হয়। পাকিস্তানের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক কাঠামোয় মুসলিম লীগ পূর্ব পাকিস্তানের ন্যায্য হিস্যা প্রতিষ্ঠিত করতে না পারায় দলটির এ পরিণতি হয়, ফলে ক্রমান্বয়ে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক স্বায়ত্তশাসনের দাবির বিষয়টি উঠে আসে।

এই প্রবন্ধের লক্ষ্য হচ্ছে, দুই অর্থনীতির তত্ত্ব সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা দেওয়া এবং তার প্রকৃত ইতিহাসের ওপর আলোকপাত করা। পাকিস্তানের উন্নয়নের এই কাঠামোর উত্স নিয়ে গত কয়েক বছরে গণমাধ্যম ও বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে অনেকেই অনেক কথা বলেছেন, যার মধ্যে অনেক কথাই ভুল ও অযথাযথ। কিন্তু ছয় দফার—যার মূল অর্থনৈতিক প্রপঞ্চ ছিল এই ধারণা—ভিত্তিতে পরিচালিত স্বাধীনতার সংগ্রাম শেষমেশ সফল না হলে এই যুগান্তকারী ধারণা হয়তো মহাফেজখানায় পোকার খাদ্যে পরিণত হতো, সেটা এতটা দৃষ্টি আকর্ষণ করত না। সর্বোপরি, মানুষ সফলতার ভাগীদার হতে চায়, ব্যর্থতার নয়।

pathok

যোগাযোগের ঠিকানা

সিএ ভবন,
১০০ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,
কারওয়ান বাজার, ঢাকা - ১২১৫।

ফোন: ৮৮০-২-৮১১০০৮১, ৮১১৫৩০৭
ফ্যাক্স - ৮৮০-২-৯১৩০৪৯৬

protichinta kinte chile