protichinta

লে খ ক প রি চি তি

বদরুল আলম খান

বদরুল আলম খান দীর্ঘকাল ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনায় নিযুক্ত আছেন। চট্টগ্রাম ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজতত্ত্ব বিভাগে শিক্ষকতার পর বর্তমানে তিনি অস্ট্রেলিয়ার সিডনি শহরে ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্টার্ন সিডনিতে অধ্যাপনা করছেন। তাঁর গবেষণার বিষয়বস্তু আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, বাংলাদেশ সমাজ, শ্রেণি, ধর্ম ও বিশ্বায়ন। তিনি বেশ কয়েকটি গ্রন্থ রচনা করেছেন, যার মধ্যে পুঁজিবাদের সমাজতত্ত্ব (সম্পাদনা), সমাজতত্ত্ব: সংকট ও সম্ভাবনার দেড় শ বছর, দর্শনের সংকট এবং তৃতীয় বিশ্ব, ধর্ম ও সমাজ বিপ্লব বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। সংঘাতময় বাংলাদেশ: অতীত থেকে বর্তমান নামক একটি গ্রন্থ সম্প্রতি প্রথমা প্রকাশন থেকে প্রকাশিত হয়েছে।

লাইলুফার ইয়াসমিন

লাইলুফার ইয়াসমিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এবং সিডনির ম্যাকুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আধুনিক ইতিহাস, রাজনীতি এবং আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ডক্টরেট প্রার্থী। তিনি বিস্তৃতভাবে বাংলাদেশের নিরপেক্ষতাবাদ এবং দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রবন্ধ লিখেছেন। তাঁর প্রধান গবেষণার বিষয় হলো ধর্ম ও রাজনীতি, জাতিগত সমস্যা এবং দক্ষিণ এশিয়ার রাজনীতি।

সাবেকুন নাজমুন

গণবিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি ও প্রশাসন বিভাগে শিক্ষকতা করছেন। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগ থেকে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন শেষে একই বিভাগ থেকে ২০১১ সালে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তাঁর গবেষণা অভিসন্দর্ভের শিরোনাম ছিল পরিবেশ নারীবাদ: বাংলাদেশ প্রসঙ্গ। পরিবেশ, নারী, সাক্ষরতা, বয়স্ক শিক্ষা, নারীর জীবন-জীবিকা, নারীর ক্ষমতায়ন ইত্যাদি বিষয়ে লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেছেন।

আবদুর রাজ্জাক

বিংশ শতাব্দীর বাংলাদেশে জাতীয় অধ্যাপক আবদুর রাজ্জাক (১৯১২-৯৯) ছিলেন সম্পূর্ণ ব্যতিক্রমধর্মী এক মানুষ। অর্ধশতাব্দীর অধিককাল তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। এটিই ছিল তাঁর প্রাণকেন্দ্র। তবে কর্তব্যবোধে বৃহত্তর রাজনৈতিক ও সামাজিক ক্ষেত্রে তিনি ভূমিকা পালন করেছিলেন। বিলেতফেরত এই ব্যক্তির জীবনযাপন প্রণালির সারল্য, অনাড়ম্বর দেশীয় সজ্জা এবং মৌখিক ভাষার নিজস্ব ঢং তাকে বিশিষ্টতা দিয়েছিল।

ইফতেখার ইকবাল

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরিবেশ এবং ইতিহাসে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন। জার্মানির Humboldt বিশ্ববিদ্যালয়সহ নর্থ সাউথ, ইস্ট ওয়েস্ট ও ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়েও পড়িয়েছেন। ব্রিটিশ একাডেমি, আগা খান বিশ্ববিদ্যালয়, হুম্বল্ডত ফাউন্ডেশন ও কমনওয়েলথ ট্রাস্ট থেকে ফেলোশিপ পেয়েছেন। তাঁর বই দ্য বেঙ্গল ডেল্টা (পালগ্রাভ মাকমিলান, ২০১০) বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন পুরস্কার এবং Bernard S. Cohn Book Prize কমিটি কর্তৃক Honorable Mention অর্জন করেন (২০১০)।

মীজান রহমান

মীজান রহমান (জন্ম ১৯৩২) বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান গণিতবিদ। তিনি কানাডার নিউ ব্রুনসউইক থেকে ১৯৬৫ সালে পিএইচডি ডিগ্রি নেন। তারপর তিনি কার্লেটন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন এবং পরে প্রফেসর ইমেরিটাস হিসেবে আখ্যায়িত হন। শিক্ষকতা ছাড়াও তিনি বিভিন্ন বিষয়ে লেখালেখি করেন। বিভিন্ন ইন্টারনেট ব্লগ, ই-ম্যাগাজিনে বাংলা ভাষায় লেখালেখি করেন। তাঁর বইয়ের মধ্যে Basic Hypergeometric Series (coauthor), Special Functions, q-Series and Related Topics (coeditor), তীর্থ আমার গ্রাম, লাল নদী, ভাবনার আত্মকথন, শূন্য, আনন্দ নিকেতন ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

pathok

যোগাযোগের ঠিকানা

সিএ ভবন,
১০০ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,
কারওয়ান বাজার, ঢাকা - ১২১৫।

ফোন: ৮৮০-২-৮১১০০৮১, ৮১১৫৩০৭
ফ্যাক্স - ৮৮০-২-৯১৩০৪৯৬

protichinta kinte chile